ইয়াসির শাহ ৮২ বছর পুরনো রেকর্ড ভেঙ্গেছেন

প্রকাশিতঃ ডিসেম্বর ৬, ২০১৮ আপডেটঃ ৪:৩২ অপরাহ্ন

বিশ্বরেকর্ড গড়তে পারতেন প্রথম ইনিংসেই। কিন্তু তাকে সুযোগ না দিয়ে বিলাস আসিফ পাঁচ উইকেট নিয়ে নেয়ায় অপেক্ষা বাড়ে মাইলফলকের। তবে খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি পাকিস্তানের লেগস্পিনার ইয়াসির শাহকে। ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসেই করে ফেলেছেন বিশ্বরেকর্ড।

তৃতীয় দিন শেষ বিকেলে টম লাথামকে আউট করে থেমেছিলেন ১৯৯’তে। পরদিন সকালে এসেই অভিষিক্ত উইলি সমারভিলকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন ইয়াসির শাহ। পূরণ করেন নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের ২০০ উইকেট। তাও কি-না মাত্র ৩৩ ম্যাচে। দ্রুততম ২০০ উইকেট নেয়ার বিশ্বরেকর্ড এটিই।

বিশ্বরেকর্ড গড়ার পথে ইয়াসির শাহ ভেঙেছেন ক্ল্যারি গ্রিমেটের ৮২ বছর পুরনো রেকর্ড। অস্ট্রেলিয়ার এ লেগস্পিনার ১৯৩৬ সালে মাত্র ৩৬ টেস্ট খেলে নিয়েছিলেন ২০০ উইকেট। যে রেকর্ড টিকে ছিলো পুরো ৮২ বছর। পাকিস্তানি লেগস্পিনার তিন ম্যাচ কম খেলেই ভেঙে দিলেন সে রেকর্ড।

এর আগে ১০০ উইকেট নেয়ার পথেও যৌথভাবে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন ইয়াসির। মাত্র ৯ টেস্টে ১৫ উইকেট পূরণ করার পরে, ১০০ উইকেট নিতে তিনি খেলেছিলেন ১৭টি টেস্ট। পরের ১০০ উইকেট নিতে তার প্রয়োজন পড়লো কেবল ১৬টি ম্যাচ।

ম্যাচের হিসেবে দ্রুততম হলেও অভিষেকের পর থেকে সময়ের হিসেবে তার চেয়েও দ্রুততম ২০০ উইকেট শিকারী রয়েছেন আরও দুই জন। ইংলিশ অফস্পিনার অভিষেকের ৩ বছর ৩৪৮ দিনে এবং একই দেশের কিংবদন্তী অলরাউন্ডার ইয়ান বোথাম অভিষেকের ৪ বছর ৩০তম দিনে এ মাইলফলকে পৌঁছেছিলেন। ইয়াসিরের ২০০ উইকেট এলো অভিষেকের ৪ বছর ৪২ দিন পরে।

টেস্ট ক্রিকেটে দ্রুততম ২০০ উইকেট শিকারীর তালিকা

১/ ইয়াসির শাহ (পাকিস্তান) – ৩৩ টেস্ট, ২০১৮ সাল
২/ ক্ল্যারি গ্রিমেট (অস্ট্রেলিয়া) – ৩৬ টেস্ট, ১৯৩৬ সাল
৩/ রবিচন্দ্রন অশ্বিন (ভারত) – ৩৭ টেস্ট, ২০১৬ সাল
৪/ ডেনিস লিলি (অস্ট্রেলিয়া) – ৩৮ টেস্ট, ১৯৭১ সাল
৫/ ওয়াকার ইউনুস (পাকিস্তান) – ৩৮ টেস্ট, ১৯৯৫ সাল

এসএইচ-২০/০৬/১২ (স্পোর্টস ডেস্ক)