পাঁচ সুন্দরী ইংল্যান্ডে ঝড় তুলেছেন

প্রকাশিতঃ জুন ২, ২০১৯ আপডেটঃ ৯:০৯ অপরাহ্ন

শুরু হয়ে গেছে ক্রিকেটের মহাযজ্ঞ। ব্যাটে-বলে চলছে ধুন্ধুমার লড়াই। অংশগ্রহণকারী দেশগুলো আগামী ৪৬ দিন এই ক্রিকেটেই মেতে থাকবে। তবে বিশ্বকাপের মতো এমন জমজমাট আসর শুধু ক্রিকেটের মহোৎসবই নয়, আছে গ্ল্যামারেরও অনেক ব্যাপার।

আসরকে জমিয়ে তুলতে সেই গ্ল্যামারের যোগান দিচ্ছেন পাঁচজন সুন্দরী উপস্থাপিকা। এদের সবাই ক্রিকেট উপস্থাপনা দিয়ে নিজেদেরকে অন্যভাবে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। যে কারণে খুব অল্প সময়ে তারকার সিল লেগে গেছে তাদের গায়েও। চার দেশ থেকে যাওয়া পাঁচ সুন্দরী সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

মায়ান্তি ল্যাঙ্গার: এই উপস্থাপিকা ক্রিকেটারদের চেয়ে কম জনপ্রিয় নন। ভারতীয় স্পোর্টস উপস্থাপনায় ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছেন তিনি। ভারতের প্রথম সারির উপস্থাপিকার মধ্যে মায়ান্তি অন্যতম। তার আরও একটি পরিচয় আছে। তিনি ভারতীয় ক্রিকেটার স্টুয়ার্ট বিনির স্ত্রী। স্টার নেটওয়ার্কের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছেন মায়ান্তি। ২০১১ ফিফা বিশ্বকাপে ফুটবলেও নিজেকে প্রমাণ করেন তিনি। এরপর ২০১১ ক্রিকেট বিশ্বকাপ থেকে ক্রিকেটে মন দেন মায়ান্তি। ২০১৫ বিশ্বকাপে দারুণ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তিনি। চলতি বিশ্বকাপে অফিসিয়াল সম্প্রচারক স্টারের প্যানেলে রয়েছেন মায়ান্তি। মূলত ভারতের ম্যাচে উপস্থাপক হিসেবে কাজ করবেন তিনি।

জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া: বাংলাদেশের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া গত কয়েক বছর ধরে ক্রিকেট উপস্থাপিকা হিসেবে কাজ করে আসছেন। ২০০৭ সালে মিস বাংলাদেশ খেতাব জেতা পিয়া ২০০৮ থেকে মডেলিং করে আসছেন। পেশায় আইনজীবী পিয়া ২০১৩ সালে মিস ইন্ডিয়ান প্রিন্সেস ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড জেতেন। বাংলাদেশের প্রথম নারী হিসেবে ভোগ ইন্ডিয়ার কভার গার্ল হন পিয়া। বাংলাদেশের একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) কয়েকটি আসরে কাজ করা পিয়া এবার বিশ্বকাপে গাজী টিভির উপস্থাপিকা হিসেবে কাজ করছেন।

জয়নাব আব্বাস: উপস্থাপিকা হিসেবে বিশ্বকাপে কাজ করছেন পাকিস্তানের মেয়ে জয়নাব আব্বাস। পাকিস্তান সুপার লিগ থেকে শুরু করে দেশেটির একাধিক ক্রিকেট শো হোস্ট করেছেন তিনি। শেষ কয়েক বছরে পাকিস্তানের একাধিক ক্রিকেটার ও বিশেষ ব্যক্তিদের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন জয়নাব। তার ক্রিকেট জ্ঞান প্রশংসার দাবিদার। মার্কেটিং এবং স্ট্র্যাটেজিতে এমবিএ করেছেন লাহোরের এই মেয়ে। নিরপেক্ষ মতামত দেওয়ার জন্যই তিনি মূলত আলাদা করে জায়গা নিয়েছেন। প্রচুর গুণমুগ্ধও রয়েছে পাকিস্তানি এই সুন্দরীর।

রিধিমা পাঠক: রেডিও জকি হিসেবে শুরু। এরপর মডেলিং থেকে অভিনয়। কিছুই বাদ দেননি রিধিমা পাঠক। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ক্রিকেটে মনোনিবেশ করেছেন তিনি। পুণের একাধিক ক্লাবে উপস্থাপনা করার পর টিভি উপস্থাপিকার কাজ শুরু করেন রিধিমা। স্টার স্পোর্টস, সনি সিক্স, টেন স্পোর্টস, জি স্টুডিও এবং অনান্য প্রথম সারির চ্যানেলের হয়ে সেলিব্রিটিদের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন তিনি। চলতি বিশ্বকাপে আইসিসির ইনসাইডার হিসেবে ইতোমধ্যে বিরাট কোহলির সাক্ষাৎকার নিয়েছেন রিধিমা।

এলমা স্মিট: দক্ষিণ আফ্রিকার রেডিও জকি এলমা স্মিট। ২০১১ সালে নিউজিল্যান্ডে রাগবি বিশ্বকাপে উপস্থাপনা করার পর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। ২০১০ সালে আফ্রিকান মিউজিক চ্যানেল এমকেতে উপস্থাপনা করেছেন তিনি। এরপরের বছর এমকে অ্যাওয়ার্ডসে উপস্থাপনা করেন এলমা। সুপারস্পোর্টটিভিতেও একই কাজ করেছেন তিনি। ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে আইসিসির প্যানেলে রয়েছেন এই গ্ল্যামারগার্ল।

ট্যাগ: উপস্থাপনা সুন্দরী ক্রিকেট বিশ্বকাপ টিভি উপস্থাপিকা আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ মায়ান্তি ল্যাঙ্গার জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) ইংল্যান্ড

এসএইচ-২৬/০২/১৯ (স্পোর্টস ডেস্ক)