বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হতে ইংল্যান্ডের চায় ২৪২ রান

প্রকাশিতঃ জুলাই ১৪, ২০১৯ আপডেটঃ ৭:৪৬ অপরাহ্ন

তিনবার বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেও ট্রফিটা ছোঁয়া হয়নি ক্রিকেটের জনক ইংল্যান্ডের। এবার চতুর্থবার। এবার কি পারবে ইংলিশরা? স্বাগতিক হয়ে লর্ডসের ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের মোকাবেলা করতে নেমে ইংলিশদের শিরোপা প্রত্যাশা অনেক বেশি। সেই প্রত্যাশা পূরণে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন বোলাররা। এবার দায়িত্ব ব্যাটসম্যানদের।

রোববার টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ইংলিশ বোলারদের তোপের মুখে খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যানরা। স্বাগতিক ইংল্যান্ডের সামনে মাত্র ২৪২ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিতে পেরেছে তারা।

শুরুটা একেবারে খারাপ না হলেও বরাবরের মতো এদিনও ভক্তদের হতাশ করে ১৮ বলে ১৯ রান করে ফিরে যান নিউজিল্যান্ডের মারকুটে ওপেনার মার্টিন গাপটিল। দলীয় ২৯ রানে তার বিদায়ের পর বিপদে পড়ে কিউইরা। তবে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দারুণ ব্যাট করে পরিস্থিতি সামাল দেন হেনরি নিকোলস ও কেন উইলিয়ামসন।

তাদের জুটিতেই দলীয় শতরান পেরিয়ে যায় কিউইরা। দলীয় ১০৩ রানের মাথায় ৫৩ বলে ব্যক্তিগত ৩০ রানে কট বিহাইন্ড হয়ে ফিরে যান উইলিয়ামসন। অধিনায়কের বিদায়ের ১৫ রান পর নেই নিকোলসও।

কিন্তু কিউইদের সবচেয়ে বড় ক্ষতিটা হয়েছে এরপরই। মার্ক উডের একটি বল রস টেইলরের প্যাডে লাগলে আম্পায়ার আঙ্গুল তুলে দেন। কিন্তু রিভিউতে দেখা যায় বলটি স্ট্যাম্পের উপর দিয়ে গেছে। কিন্তু একমাত্র রিভিউ মার্টিন গাপটিল আগেই নষ্ট করায় পরীক্ষার সুযোগ পাননি টেইলর।

ফলে দ্রুত মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে পড়েন অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান। এরপর টম লাথাম প্রথমে জিমি নিশাম এবং পরে কলিন ডি গ্রান্ডহোমকে নিয়ে দলকে টানার চেষ্টা করেন। ম্যাচে ৪৯ তম ওভারে আউট হওয়ার সময় লাথামের ব্যাট থেকে আসে ইনিংসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৭ রান।

ইংল্যান্ডের হয়ে ক্রিক ওয়কস ও লিয়াম প্ল্যাংকেট সর্বোচ্চ তিনটি করে উইকেট নেন। এছাড়া মার্ক উড ও জোফরা আর্চার একটি করে উইকেট নেন।

এসএইচ-১৭/১৪/১৯ (স্পোর্টস ডেস্ক)