মাহমুদউল্লাহর দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন, যা বললেন শান্ত-হাথুরু

২০২১ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক হিসেবেই খেলেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সেবার কাঙ্ক্ষিত পারফরম্যান্স দেখাতে ব্যর্থ হওয়ার পর অভিজ্ঞ এই টাইগার ক্রিকেটার ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলেও জায়গা হারান। তবে আসন্ন ২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মাহমুদউল্লাহ যাচ্ছেন দলের অন্যতম ভরসা হয়েই। যে কারণে দেশ ছাড়ার আগে তাকে নিয়ে আলাদা করে কথা বললেন প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।

মিরপুরে আজ (বুধবার) সংবাদ সম্মেলনে রিয়াদকে নিয়ে হাথুরু বলেন, ‘রিয়াদ দুর্দান্ত কামব্যাক করেছে। কিছুটা দেরি হলেও সে এখন নিজের সেরা ক্রিকেট খেলছে। ব্যাটিং এপ্রোচে অনেক পরিবর্তন এনেছে এবং দারুণ ফর্মে আছে এই মুহূর্তে। মিডল অর্ডার কিংবা দলের ফিনিশার হিসেবে তার ভূমিকা কেমন হচ্ছে, এটা গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। যেটা ঘরোয়া ক্রিকেটের সব ফরম্যাট থেকে শুরু করে সবখানেই দারুণভাবে করে আসছেন মাহমুদউল্লাহ।’

এদিকে, অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্তও উচ্ছ্বসিত রিয়াদের এমন প্রত্যাবর্তনে। তার মতে তিনি তরুণ ক্রিকেটারদের জন্য প্রেরণা হতে পারেন, ‘রিয়াদ ভাই যেভাবে ফিরে এলেন এবং সবচেয়ে বড় কথা উনি এখন যেভাবে খেলছেন। উনার যে দায়িত্ব আছে তা তিনি পালন করছেন, এতে দলও অনেক দূর এগিয়ে যাচ্ছে। ৫–৬ নম্বরে ব্যাটিং করছেন, কখনও দায়িত্ব পালন করছেন ফিনিশিংয়ের, এটা অবশ্যই আমাদের জন্য বাড়তি একটা সুযোগ যে আমরা ভালো স্কোর দাঁড় করাতে পারি। তরুণদের জন্য অবশ্যই অনুপ্রেরণার জায়গা এটা, যে কীভাবে এরকম একটা পরিস্থিতি থেকে ফিরে আসা যায়।’

হাথুরু অবশ্য আমেরিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজে কন্ডিশন নিয়েও ভাবছেন, ‘আইসিসি ইভেন্টের বাইরে আমরা ভালো ক্রিকেট খেলেছি। দেশেরও প্রত্যাশা আছে যেন আমরা বড় কিছু করতে পারি। আমাদের প্রাথমিক লক্ষ্য গ্রুপ পর্ব পার করা। তবে আমাদের ওই দেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রে খেলা আমাদের সবার জন্যই নতুন অভিজ্ঞতা। তাদের টাইমজোন, আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। হয়তো দু-একটি সমন্বয়ও চেষ্টা করব। তার মানে মূল খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দেওয়া…।’

জিম্বাবুয়ে সিরিজে টপ অর্ডারদের ব্যর্থতা নিয়ে হাথুরুসিংহে বলেন, ‘কিছু ম্যাচে ব্যাট হাতে আমরা ভালো শুরু পাইনি। কিছু ম্যাচে আবার শুরুটা ভালো না হলেও ফিনিশিং কিন্তু ভালোই হয়েছে। কয়েকজন ভালো রান করেছে, ভালো ব্যাট করেছে। টি-টোয়েন্টিতে যেকোনো কিছু হতে পারে, এটা অন্য দুই ফরম্যাটের মতো নয়। টপ-অর্ডাররা রান করলে ভালোই লাগবে। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের আগে আমাদের ৫টি ম্যাচ আছে। ফলে এই জিনিসগুলো নিয়ে কাজ করার সুযোগ পাব।’

এসএ-০৭/১৫/২৪(স্পোর্টস ডেস্ক)