সাতক্ষীরার ভোমরা বন্দর পরিদর্শনে ভারতের হাইকমিশনার

প্রকাশিতঃ জুন ১০, ২০১৯ আপডেটঃ ১০:০১ অপরাহ্ন

সাতক্ষীরার ভোমরা ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ঘোজাডাঙ্গা বন্দর গতকাল সোমবার আকস্মিক পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাশ। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি হাইকমিশনার সুরেশ রায়না।

ভোমরা বন্দর ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা জুয়েল হাসান জানান, সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় হাইকমিশনার ভোমরা বন্দরে আসেন। কয়েক মিনিট পর তিনি ওপারে ঘোজাডাঙ্গা বন্দরও পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি কর্মকর্তা, যাত্রী ও ব্যবসায়ীদের কাছে সমস্যার কথা জানতে চান।

এ সময় তাকে জানানো হয়, বাংলাদেশের রোগীরা চিকিৎসার জন্য ভারতে যান। কিন্তু ফেরার সময় তাদের কাছে ওষুধপথ্য ও ব্যবহূত লাগেজ বিএসএফ আনতে বাধা দেয়। এমনকি তাদের হেঁটে আসার অক্ষমতার বিষয়টি বিবেচনা করে কোনো সাধারণ যানবাহনও তাকে ব্যবহার করতে দেওয়া হয় না।

অভিযোগ করে তারা আরও বলেন, বিএসএফ ভারত এবং বাংলাদেশের শ্রমিকদের আসা-যাওয়ার পথেও নানা প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে। প্রকৃতপক্ষে আমদানি-রফতানি বাণিজ্যের স্বার্থে এসব শ্রমিককে প্রয়োজন বলে উল্লেখ করেন কর্মকর্তারা। ভারতীয় এলাকা থেকে আসা পণ্যবাহী ট্রাক ভোমরা ট্রাক টার্মিনালে প্রবেশ করলেই বিভিন্ন অজুহাতে টাকা আদায় করা হয়।

হাইকমিশনার ভারতের ঘোজাডাঙ্গা বন্দরে ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা প্রশান্ত ঘোষ ও পাসপোর্ট যাত্রীদের সঙ্গে তাদের সমস্যা নিয়ে কথা বলেন। তিনি দুই বন্দরের সমস্যা চিহ্নিত করে তা সমাধানের জন্য কাজ করবেন বলেও উল্লেখ করেন।

বিএ-২২/১০-০৬ (আঞ্চলিক ডেস্ক)