বরিশালে নদী ভরাট করে জমি ভাড়া দেন দুই যুবলীগ নেতা

প্রকাশিতঃ জুলাই ১০, ২০১৯ আপডেটঃ ৯:৫২ অপরাহ্ন

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার সন্ধ্যা নদী ভরাট করে জমি ভাড়া দিয়ে আসছিলেন স্থানীয় দুই যুবলীগ নেতা। তারা দীর্ঘদিন ধরে নদী ভরাট ও দখল কর্মকাণ্ড চালালেও প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয়রা তাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছিল না।

অবশেষে বুধবার দুপুরে পুলিশের সহায়তায় অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালত। নদী ভরাট করে জমি ভাড়া দেয়ার অভিযোগে আটক করা হয় ওই দুই যুবলীগ নেতাকে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) বিপুল চন্দ্র দাস তাদেরকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। সেই সঙ্গে আগামী ৩০ আগস্টের মধ্যে ভরাটকৃত নদীর জায়গায় রাখা বালু ও পাথর সরিয়ে নিজ খরচে মাটি কেটে পুনরায় আগের অবস্থানে নদীর প্রবাহ ফিরিয়ে দেয়ার অঙ্গীকার করেন দুই যুবলীগ নেতা। এর ব্যত্যয় ঘটলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে ভ্রাম্যমাণ আদালত জানিয়ে দেন।

তারা হলেন- উপজেলার পয়সারহাট গ্রামের মৃত মালেক খানের ছেলে যুবলীগ নেতা জেবারুল খান ও একই এলাকার আজাহার তালুকদারের ছেলে যুবলীগ নেতা জুয়েল তালুকদার।

ইউএনও বিপুল চন্দ্র দাস বলেন, দুপুরে সন্ধ্যা নদীর অবৈধ দখলদার উচ্ছেদে অভিযান চালানো হয়। এ সময় অবৈধ দখলদার জেবারুল খান ও জুয়েল তালুকদারকে আটক করে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া নদীর পূর্ব পাড়ে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় অবৈধ দখলদার স্থানীয় বালু ব্যবসায়ী বখতিয়ার এন্টারপ্রাইজের মালিক বাদশা বখতিয়ারের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

বিপুল চন্দ্র দাস আরও বলেন, দখলদাররা কৌশলে নদীর মধ্যে বাঁশের বেড়া দিয়ে পানির প্রবাহ বাধাগ্রস্ত করে নদী তীর ভরাট করে তা দখলের অপচেষ্টায় লিপ্ত। এ কারণে এখন পয়সারহাটগামী লঞ্চ টার্মিনালে ভিড়তে পারছে না। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়াম্যানকে বাঁশের বেড়া অপসারণের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে এবং দখলদারদের সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

বিএ-২০/১০-০৭ (আঞ্চলিক ডেস্ক)