ডিম জমে পাথর

প্রকাশিতঃ জুন ৯, ২০১৯ আপডেটঃ ৭:২৮ অপরাহ্ন

ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের সিয়াচেন প্রায় সব সময়ই বরফে আবৃত থাকে। তাপমাত্রা প্রায়ই মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি নেমে যায়। সম্প্রতি সিয়াচেনের জওয়ানদের খাওয়া দাওয়ার বাস্তব অবস্থা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা গেছে ঠান্ডার কারণে ডিম জমে পাথরের মতো শক্ত হয়েছে।

যেখানে ডিম হাতে এক জওয়ানকে বলতে দেখা যাচ্ছে, ‘হাতুড়ি দিয়ে মারলেও এ ডিম ভাঙা যায় না।’

ওই ভিডিওতে আরও দেখা যাচ্ছে, এক জওয়ান ফলের রসের টেট্রা প্যাক খুলে দেখছেন, পুরোটাই জমে বরফ হয়ে গেছে! একটি পাত্রে সেটি ফুটিয়ে নেয়া ছাড়া উপায় নেই। আলু, টোম্যাটো, পেঁয়াজ বা আদার মতো সবজিও ঠান্ডায় পাথরের মতো শক্ত হয়ে গেছে। এক জওয়ান সেগুলোকে বারবার কাটার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে শেষে হাতুড়ি দিয়ে ভাঙার চেষ্টা করছেন। তবে তাতেও কোনো লাভ হচ্ছে না।

ভিডিওর শেষ ভাগে জওয়ান বলছেন, ‘দেখলেন তো, এ কারণেই এখানকার পরিস্থিতিতে জীবনধারণ মোটেই সহজ নয়। তাপমাত্রা প্রায়ই মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি নেমে যায়।’

সিয়াচেনে জীবনধারণের প্রাথমিক সরঞ্জামগুলো পৌঁছনোও কষ্টসাধ্য ব্যাপার। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই কপিকলের সাহায্যে তা পৌঁছনো হয়। শীতকালে বরফ পড়ে রাস্তা বন্ধ থাকায় লাইট চিতা হেলিকপ্টারে খাবার এবং অস্ত্র সরবহরাহের একমাত্র মাধ্যম হয়ে দাঁড়ায়।

২০১৬ সালে একটি বেসরকারি সংস্থার রিপোর্টে বলা হয়, কঠিন আবহাওয়া কিংবা তুষার ধসের কারণে সিয়াচেনে প্রতি মাসে গড়ে দুই জওয়ানের মৃত্যু হয়।

এসএইচ-১৪/০৯/১৯ (অনলাইন ডেস্ক)