ফেসবুক গণতন্ত্রের জন্য হুমকি

দিন যত গড়াচ্ছে, ফেসবুকের বিরুদ্ধে অভিযোগের পারদ ততো বাড়ছে। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির এক সাবেক কর্মীর ফাঁস করা তথ্য সেই সমালোচনা আরো উসকে দিয়েছে।

একটি জরিপেও উঠে এসেছে শিশু ও গণতন্ত্রের জন্য ফেসবুকের ক্ষতিকর প্রভাবের বিষয়।

এবার ফেসবুকের বিরুদ্ধে কথা বলে উঠলেন শান্তিতে নোবেলজয়ী ফিলিপাইনের সাংবাদিক মারিয়া রেসা। তিনিও বললেন, ফেসবুক গণতন্ত্রের জন্য হুমকি।

তিনি বলেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট ফেসবুক ভুল তথ্য ছড়ানো আটকাতে পারেনি এবং তারা হিংসা ছড়ানো রোধ করতে ব্যর্থ হয়েছে। ফেসবুক যেন সত্যের বিপক্ষেই দাঁড়িয়ে। ’

র‌্যাপলারের প্রধান মারিয়া রেসা আরো বলেন, ফেসবুকের কারণে রাগ এবং হিংসা যেন সত্যকে ছাপিয়ে যাচ্ছে।

সম্প্রতি ফেসবুকের সাবেক এক কর্মী অভিযোগ তোলেন, ঘৃণা ও ভুয়া তথ্য বন্ধ করার চেয়ে ফেসবুক বেশি ব্যস্ত অর্থ উপার্জনে।

তবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

রেসার মন্তব্যের পর ফেসবুকের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, ক্ষতিকর কনটেস্ট সরাতে বিপুল সংখ্যক জনবল নিয়োগ করা হয়েছে। আমরা মত প্রকাশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী।

রেসা বলেন, ‘প্রকৃত ঘটনা না জানলে আপনি সত্য জানতে পারবেন না। আপনি তখন বিশ্বাস থেকে দূরে সরে যাবেন। প্রকৃত ঘটনা, সত্য ও বিশ্বাস—এ তিনটির একটিও যদি আপনার কাছে না থাকে, তবে আপনি গণতন্ত্রহীন হয়ে যাবেন। আর যদি সত্য জানার পরও আপনি সেটা সঠিকভাবে মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে না পারেন, তবে আপনি অনেককে অনেক কিছু জানা থেকে বঞ্চিত করবেন।

এসএইচ-২৫/১০/২১ (প্রযুক্তি ডেস্ক)

Exit mobile version