আদালতের অনুমতিতে হজে যাচ্ছেন সাবেক এমপি রানা

প্রকাশিতঃ জুলাই ১৯, ২০১৯ আপডেটঃ ৪:২৯ অপরাহ্ন

টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান রানাকে হজে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের দিন প্রধান আসামি রানা আদালতে হাজির হয়ে হজে যাওয়ার অনুমতি চেয়ে আবেদন করেন।

পরে আদালত তাকে হজে যাওয়ার অনুমতি দেন ও আগামী ২৯ আগস্ট ওই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পিপি মহসিন সিকদার জানান, টাঙ্গাইলের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ফারুক আহমেদ হত্যা মামলার ময়না তদন্তকারী চিকিৎসক মোজাম্মেল হোসেন সাক্ষ্য দেন। এরপর আসামি পক্ষের আইনজীবীরা তাকে জেরা করেন। এ নিয়ে এ মামলায় মোট ১৮ জনের সাক্ষ্য নেয়া হলো।

চিকিৎসকের সাক্ষ্য দেয়ার পর রানা আইনজীবীর মাধ্যমে হজ পালনের জন্য সৌদি আরব যাওয়ার অনুমতি প্রার্থনা করে আবেদন দাখিল করেন। পরে আদালতের বিচারক টাঙ্গাইলের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ রাশেদ কবির রানার ওই আবেদন মঞ্জুর করেন।

দীর্ঘ ৩৪ মাস কারাগারে থাকার পর রানা গত ৯ জুলাই জামিনে মুক্তি পান। জামিন পাওয়ার পর গত বৃহস্পতিবার ফারুক আহমদ হত্যা মামলায় মুক্ত অবস্থায় প্রথমবার আদালতে হাজির হলেন এমপি রানা।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ ২২ মাস পলাতক থাকার পর রানা ২০১৬ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর এই আদালতেই আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। পরে ফারুক হত্যা মামলায় গত মার্চে এবং এ মাসেই দুই যুবলীগ নেতা হত্যা মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন লাভের পর গত ৯ জুলাই মুক্তি পান তিনি।

২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ফারুক আহমদের গুলিবিদ্ধ মরদেহ তার কলেজপাড়া এলাকার বাসার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনার তিনদিন পর তার স্ত্রী নাহার আহমেদ বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

২০১৪ সালের আগস্ট মাসে গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে এ হত্যাকাণ্ডে রানা ও তার ভাইদের নাম আসে। ২০১৬ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি তদন্ত শেষে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় গোয়েন্দা পুলিশ। ওই মামলায় আমানুর রহমান রানা ছাড়াও তার তিন ভাই টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক মেয়র সহিদুর রহমান খান মুক্তি, ব্যবসায়ী নেতা জাহিদুর রহমান খান কাকন ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সানিয়াত খান বাপ্পাসহ ১৪ জনকে আসামি করা হয়।

বিএ-০৪/১৯-০৭ (আঞ্চলিক ডেস্ক)