ওমানের মরুভূমিতে সবজি ফলাচ্ছেন বাংলাদেশের নুর নবী

প্রকাশিতঃ জানুয়ারী ২০, ২০১৮ আপডেটঃ ১০:১৪ পূর্বাহ্ন

যুগ জামানা পালটে দিতে লাগেনা অনেকজন,একজনই পারে পালটে দিতে জাতির জাগরণ।
এই কথাটির যথার্থ বাস্তবায়ন করেছেন ফেনি জেলার ফাজেলপুর ইউনিয়ন এর শিবপুর গ্রামের কৃতি সন্তান জনাব হাজী নুর নবী।

দীর্ঘ ২৮ বছরের প্রবাস জীবনে সফলতার চূড়ান্ত পর্যায়ে এসে তিনি প্রমাণ করেছেন প্রবাসী মানেই কামলা নয়। একটা সময় অনেকেই মনে করতো যে প্রবাসী মানেই শ্রমিক; কিন্তু এখন তার চিত্র পাল্টাচ্ছে।

জনাব নুর নবী ওমানের মাঝে প্রায় ২০০ একর জমির উপর করেছেন এক বিশাল এগ্রিকালচার প্রোজেক্ট, প্রোজেক্ট এ দিনরাত কাজ করছেন ১২৫ জন শ্রমিক। উৎপাদন করছেন সিম, লাউ, কলা, ঢেঁড়স, করলা, কেপসিপাক, জিঙ্গা, কচু, উটের ঘাসসহ প্রায় ১০প্রজাতির বেগুন ইত্যাদি।

আরও খবর : কাতারে কারিগরি খাতে প্রশংসিত বাংলাদেশিরা

মরুভূমির উত্তপ্ত গরম ৫২ ডিগ্রি তাপমাত্রার সময়ও তিনি সবজি উৎপাদন করেন, কথায় আছে শখের তোলা নাকি আশি টাকা। তিনি শখের বশে মরুভূমি তে করেছেন একটি পুকুর।

বাংলাদেশ থেকে মিঠা পানির মাছ এনে চাষ করেন খাওয়ার জন্য, করেছেন একটি বাংলো বাড়ি। যেখানে গেলে মনে হয় যেন এক টুকরো বাংলাদেশ, গরু থেকে শুরুকরে কবুতর পর্যন্ত সবই আছে।

তিনি ২৮ বছর আগে ওমানে একটি চাকরী নিয়ে এসেছিলেন। ২বছর চাকরী করার পর নিজের উদ্যোগে শুরু করেন এগ্রো প্রোজেক্ট্।

শুরুতে অনেক চরাই উতরাই পার হয়ে তিনি শুধুমাত্র একজন সফল ব্যবসায়ী ই নন। তিনি এখন বাংলাদেশের গর্ব।

এসএইচ-০৫/২০/০১ (প্রবাস ডেস্ক, তথ্যসূত্র : ভয়েস বাংলা)