ট্রাম্প নারীদের মাংসের টুকরো মনে করেন!

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ১৬, ২০১৮ আপডেটঃ ৪:৫১ অপরাহ্ন

বরখাস্ত হওয়ার পরে এই প্রথম মুখ খুললেন মার্কিন তদন্তকারী সংস্থা এফবিআইয়ের প্রাক্তন প্রধান জেমস কোমি।

একটি আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট হওয়ার কোনও নৈতিক অধিকার নেই ডোনাল্ড ট্রাম্পের। ট্রাম্প একজন মিথ্যেবাদী প্রতারক। তিনি নারীদের মাংসের টুকরো ছাড়া আর কিছু মনে করেন না।

আরও খবর : এ কেমন প্রতিবাদ

কোমি বলেন, ‘‌ট্রাম্প নাগাড়ে মিথ্যা বলে চলেছেন এবং বিচারের কাজেও বাধা তৈরি করছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশে প্রেসিডেন্ট হতে গেলে তাঁকে সর্বজনশ্রদ্ধেয় হতে হয়।

জনতার দেওয়ার সম্মানের পাত্র হতে হয়। এবং সবচেয়ে যেটা গুরুত্বপূর্ণ, সেটা হল সত্যবাদী হতে হয়। সততা, সত্য এবং নীতি— এই ভিত্তিগুলোর ওপরেই আমাদের দেশের গণতন্ত্র দাঁড়িয়ে। কিন্তু ট্রাম্প এসব কিছুই করেননি।’‌

এদিকে পাল্টা আক্রমণ শানিয়েছে ট্রাম্পের দল রিপাবলিকান পার্টি। একটি বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, ‘‌কোমি তাঁর যে আত্মজীবনী লিখছেন, তার বিক্রি বাড়ানোর জন্যই চাঞ্চল্য তৈরি করার চেষ্টা করছেন।’‌ ট্রাম্প নিজেও মুখ খুলেছেন। বলেছেন, ‘‌কোমি অনেক মিথ্যে বলেছেন। এগুলো তাদের মধ্যে কয়েকটা।’‌

এসএইচ-১৭/১৬/০৪ (অনলাইন ডেস্ক, তথ্যসূত্র : আজকাল)