পরকীয়ার জেরে গাছে বেঁধে মারধর যুগলকে

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ৮, ২০১৮ আপডেটঃ ৩:২২ অপরাহ্ন

পরকীয়ার জেরে দু’জনকে গাছে বেঁধে মারধরের অভিযোগ উঠল। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ধুপগুড়ি ব্লকের শালবাড়ি ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের দক্ষিণ নুনখাওয়াডাঙা মজর মিল এলাকায়। মঙ্গলবার রাতে এক ব্যক্তিকে স্থানীয় এক মহিলার সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগে আটক করা হয়।

এরপর কাসেম আলি নামে ওই ব্যক্তিকে মহিলা সমেত গাছে বেঁধে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। আক্রান্ত কাসেম শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, কাসেম প্রায়ই ওই মহিলার বাড়িতে আসত। মঙ্গলবার রাতেও কাসেম এসেছিল ওই মহিলার বাড়িতে। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন মহিলার বাড়িতে হানা দিয়ে দু’‌জনকেই আটক করে। এরপর গাছে বেঁধে দু’‌জনকেই মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে বানারহাট থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। ওই মহিলাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

কাসেমকে পাঠানো হয় হাসপাতালে। ঘটনার সাক্ষী হিসেবে আরও চারজনকে থানায় নিয়ে আসা হয়। এরপরই সবাইকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এই ঘটনার জেরে বুধবার সকাল থেকেই আটক চারজনকে অবিলম্বে মুক্তি দেওয়ার দাবিতে পথ অবরোধ করেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে জলপাইগুড়ি জেলা অতিরিক্ত পুলিশের নেতৃত্বে পার্শ্ববর্তী থানার পুলিশকর্মীরা ঘটনাস্থলে আসেন। বুধবার বিকেলে আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করে বানারহাট থানার পুলিস।

জলপাইগুড়ির পুলিশ সুপার অমিতাভ মাইতি বলেন, ‘‌এই ঘটনায় প্রথমে চারজনকে আটক করা হয়েছিল। তার মধ্যে দু’‌জনকে গ্রেপ্তারের পর বাকি দুই মহিলাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বুধবার আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’‌

এসএইচ-১০/০৮/১১ (অনলাইন ডেস্ক, তথ্য সূত্র : আজকাল)