আমিরাতের ভিসা পেতে লাগবে আচরণের সনদ

প্রকাশিতঃ জানুয়ারী ১০, ২০১৮ আপডেটঃ ১১:০৫ অপরাহ্ন

সংযুক্ত আরব আমিরাতে কর্মী ভিসা পেতে হলে বিদেশি শ্রমিকদের এখন থেকে নতুন কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে। এ জন্য ভিসা আবেদনের সঙ্গে জমা দিতে হবে সদাচরণের সনদ।

কাজপ্রত্যাশী কোনো বিদেশি শ্রমিককে তাঁদের নিজ নিজ দেশ, আগের কর্মক্ষেত্র অথবা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে চারিত্রিক প্রত্যয়নপত্র আনতে হবে। এ চারিত্রিক প্রত্যয়নপত্র দাখিল করলেই নতুন কাজের ভিসা মিলবে। কিন্তু তাঁদের পরিবারের সদস্যদের কোনো চারিত্রিক সনদ লাগবে না।

গত সোমবার সংযুক্ত আরব আমিরাত এ ধরনের ঘোষণা দিয়েছে। ঘোষণা অনুযায়ী, আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি থেকে নতুন এই আইন কার্যকর হবে। গত বছর এ প্রস্তাব করা হয়েছিল। প্রস্তাবটি বিবেচনার পর এ ধরনের সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে কর্মী ভিসা পেতে হলে বিদেশি শ্রমিকদের একটি সনদ দাখিল করতে হবে। সেই সনদে বিগত পাঁচ বছরে তাঁরা ভালো আচরণ করেছেন কি না, তার একটি বিবরণ থাকবে। সরকারের সূত্রগুলো বলছে, নিরাপত্তার খাতিরে দেশটির সরকার আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি থেকে বিদেশি শ্রমিকদের আগেকার তথ্য পর্যবেক্ষণ ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা শুরু করবে।

আরও খবর : তিস্তার উজানে একের পর এক বাঁধ নির্মাণ হচ্ছে

খবরে বলা হয়েছে, কর্মক্ষেত্রের বিভিন্ন ঘটনার জেরে সংশ্লিষ্ট মামলাগুলো পর্যবেক্ষণ করে দেখা গেছে, অনেক বিদেশি শ্রমিক আগে অপরাধ কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন কিংবা স্বদেশেও তাঁরা ছিলেন চিহ্নিত অপরাধী। এ ছাড়া অপরাধে জড়িত ছিলেন কি না, তা দেশি শ্রমিকদের ক্ষেত্রেও যাচাই করে দেখা হবে। তবে চিকিৎসা অথবা মিশন কিংবা অস্থায়ী কর্মী ভিসায় আসা বিদেশিদের এ প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে না।

আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক মিশন অথবা কাস্টমার হেপিনেস সেন্টারে জমা দিতে হবে ভিসার জন্য করা আবেদনের সঙ্গে।

নতুন এ আইনকে অহেতুক ঝামেলা বলে অনেকেই অভিযোগ করেছেন। তবে আরব আমিরাত বলছে, নিরাপদ সমাজ গড়ার লক্ষ্যেই এ ধরনের আইন করা হয়েছে। তবে ভ্রমণ ভিসায় যাওয়া ব্যক্তিরা এ আইনের আওতায় পড়বেন না।

এসএইচ-২৬/১০/০১ (অনলাইন ডেস্ক, তথ্যসূত্র : গালফ নিউজ)