ওয়ার্নকে ঘুষ সেধেছিলেন সেলিম মালিক!

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১০, ২০১৮ আপডেটঃ ৬:১৭ অপরাহ্ন

‘নো স্পিন’ নামে আত্মজীবনী প্রকাশ করে একের পর বিতর্কের জন্ম দিচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তী লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন। যদিও তার বইটির অর্থ দাঁড়ায় ‘কোনো ঘূর্ণি নেই’। কিন্তু নো স্পিনে একের পর এক ঘূর্ণি এসেই যাচ্ছে। এই তো কিছু দিন আগেই অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক ও সতীর্থ স্টিভ ওয়াহকে ‘স্বার্থপর’ বলেছেন ওয়ার্ন।

এই কথা নিয়েই কয়েকদিন গরম ছিল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট পাড়া। এবার গরম করে দিলেন পাকিস্তানি ক্রিকেট অঙ্গন। পাকিস্তানের সাবেক ব্যাটসম্যান সেলিম মালিক নাকি বাইরে বল রাখার জন্য ঘুষ সেধেছিলেন ওয়ার্নকে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ‘এনডিটিভি’তে এক আলাপচারিতায় ওয়ার্ন নিজের আত্মজীবনী সম্পর্কে বলতে গিয়ে এ কথা জানান।

ওয়ার্নের বইয়ে মালিকের সঙ্গে সেই ঘটনার বিবরণ রয়েছে। ১৯৯৪-৯৫ মৌসুমে করাচি টেস্টে ওয়ার্নকে প্রস্তাবটা দিয়েছিলেন মালিক। এই প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমটিকে ওয়ার্ন বলেন, ‘মালিক আমাকে ২ লাখ ডলার দিতে চেয়েছিল।

সে আমাকে প্রস্তাব দিয়ে বলেছিল, আমি যদি অফ স্ট্যাম্পের বাইরে বল করি এবং ম্যাচটা ড্র হলে আধা ঘণ্টার মধ্যে টাকাটা আমার ঘরে পৌঁছে যাবে।’ সেলিম মালিকের ম্যাচ পাতানোর অভিযোগটা বেশ পুরোনো। এই অপরাধের জন্য তাকে প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে জেলে যেতে হয়েছিল। এছাড়া আজীবন নিষিদ্ধ হলেও পরে তা প্রত্যাহার করে নেয়া হয়।

অন্যদিকে নিজের আত্মজীবনী নিয়ে কিংবদন্তি লেগ স্পিনার বলেন, ‘আমার ব্যক্তিগত জীবনের কোনো কিছুই গোপন না রেখে বইটা লিখেছি। নির্মম সৎ থেকেছি বইটার ব্যাপারে।’

যে ম্যাচটি নিয়ে ওয়ার্ন অভিযোগ করেছেন ঐ টেস্টে জিতেছিল পাকিস্তানই। করাচি টেস্টে পাকিস্তানের দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮ উইকেট নিয়েছিলেন ওয়ার্ন। প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেট নেওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট নিলেও দলের হার তিনি ঠেকাতে পারেননি। ১ উইকেটে জিতেছিল পাকিস্তান।

এসএইচ-১২/১০/১০ (স্পোর্টস ডেস্ক)